দেশের খবর

দেবীর গায়ের রঙ ধুয়ে যাচ্ছিল বৃষ্টিতে, নামাজের ঘরে ঠাঁই দিলেন মুসলিম ব্যক্তি

ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের পূর্ব বর্ধমান জেলার কাটোয়া এক ব্লকের খাজুরডিহি গ্রামে বাড়ি অসীমবাবুর। প্রতিমা তৈরি করেই কোনোমতে সংসার চালান তিনি।

এই বছর এলাকার আটটি প্রতিমা তৈরি করা দায়িত্ব পান তিনি। নিজের ঘরে কোনো রকমভাবে একটা প্রতিমা রাখতে পেরেছিলেন। বাইরে বাকি সাতটি প্রতিমা।
এদিকে বুধবার থেকে লাগাতার বৃষ্টি শুরু হতেই পানি ঢুকতে শুরু করে। ধুয়ে যেতে থাকে প্রতিমার রঙ। এমনকী গলতে শুরু করে মাটিও। কীভাবে রক্ষা করবেন প্রতিমা, ভেবে রীতিমতো দিশাহারা হয়ে পড়েন। অসীমের দুর্দশা দেখে এগিয়ে আসেন প্রতিবেশী আফরোজা। তিনি ও তার স্বামী ফরজ শেখ দাঁড়িয়ে থেকে এক এক করে প্রতিমা তুলে নিয়ে যান নিজেদের নামাজের ঘরে।

ফরজ শেখ বলেন, আমার প্রতিবেশী প্রতিমা তৈরি করেই সংসার চালান। এমন বৃষ্টিতে সমস্যায় পড়ে গিয়েছিল। তাই তো ঘর ছেড়ে দিয়েছি। কেউ বিপদে পড়লে কি তার জাতি-বর্ণ বিচার করলে চলে? সবার ওপরে তো মানুষ সত্য।

ফরজ সাহেবের এই মানসিকতায় আপ্লুত অসীম। তিনি বলেন, আমার বাড়িতে আর জায়গা ছিল না। বাড়ির উঠানে প্লাস্টিকের ছাউনি দিয়ে প্রতিমা তৈরি করছিলাম। কিন্তু যেভাবে বৃষ্টি নামে তাতে প্রতিমা তৈরির কাজ সম্পূর্ণ করা যেত ন। ফরজ সাহেব এগিয়ে এলেন বলেই কাজ শেষ করা সম্ভব হল।
ফরজ সাহেবের বাড়িতে প্রতিমা তৈরি হওয়ায় বেজায় খুশি তার চার বছরের মেয়ে ফারহা। নাওয়া খাওয়া ভুলে তার এখন একটাই কাজ। পা ঝুলিয়ে বসে খুব কাছ থেকে প্রতিমা তৈরি দেখা।

Related posts

Leave a Comment