দেশের খবর

শীতের কাছে হেরে যাচ্ছে বিশ্ব, কিন্তু শীত হেরে যাচ্ছে ঈ’মানদার মু’সলিমের কাছে

প্রচন্ড শীতের প্রকোপে কেউ কেউ গড়ম কাপড় ও আ’গুনের তাপ দিয়ে নিজেদেরকে রক্ষা করছেন। আবার কেউ কেউ বাসা বাড়ি থেকেও বের হচ্ছে না। এমন কি গরমের উষ্ণতা পেতে গোসল করা থেকে নিজেকে দুরে রাখছে অথচ এই প্রচন্ড শীতের মাঝেও প্রকৃত ঈ’মানদারের কাছে বরাবরের মত এবারও হেরে যাচ্ছে বরফজমানো শীত।

গতকাল থেকে স্যোসাল মিডিয়া গুলোতে একটি স্থির চিত্র ভাই’রাল হতে দেখা গেছে, প্রচন্ড শীতের মধ্য বরফজমানো পাহাড়ের উপর দাড়িয়ে কয়েকজন ব্যাক্তিকে মহান সৃষ্টিক’র্তার ইবাদতে মগ্ন থাকতে। চিত্রটি ভাল করে লক্ষ করলে দেখা যাচ্ছে বরফ জমা একটি ফাঁকা মাঠে মাটির উপর নামাজের বিছানা উপর দাড়িয়ে কয়েকজন মু’সলিমকে নামাজ আদায় করতে দেখা যাচ্ছে এবং আরো কিছু মু’সলিম নামাজের জন্য এগিয়ে আসছেন ছবিটা দেখে মনে হচ্ছে শীত যেন তাদের কাছে কিছুই না মহান সৃষ্টিক’র্তার ইবাদত তাদের কাছে অধিক গুরুত্বর। এমন একটি ছবি ভাই’রাল হওয়ার পরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম গুলোতে পাঠকদের প্রসংসিত আলোচনা ও সমালোচনার ব’ন্যায় সরগল এখন স্যোশাল মিডিয়াগুলো।

নামাজি ঐ ব্যাক্তিদের কে প্রকৃত ই’মানদার ও আল্লাহ ভিরু আখ্যাদিয়ে অনেকে তাদের প্রসংশা করেছেন, ছবিটির নিচে সাইফ হাসান নামে এক ব্যাক্তি লেখছেন, প্রকৃত ই’মানদার ব্যাক্তিদের কে কখনো দমিয়ে রাখা যায় না। যাদের মনে আল্লাহুর ভ’য় আছে যারা বিশ্বা’স করে মৃ’ত্যের পরে আরেকটি জিবন আছে সেখানে প্রতিটা মানুষের ভাল মন্দো কাজের হিসাব দিতে হবে তারা পৃথিবির সকল নি’র্যাতন এবং প্রকৃতিক দূর্যোগকে পরওয়া না করে আল্লাহুর ইবাদাতে মশগুল থাকে এটাই তার জলান্ত প্রমান।

নুরি আলম নামে এক ব্যাক্তি লেখছেন, যারা সত্যিই ঈ’মানদার হয় তাদেরকে কেও নামাজ থেকে বিরত রাখতে পারে না। নামাজের মধ্যে যেন শান্তি নিহিত, এই দৃশ্য তা প্রমাণ করে।

ড. মাহমুদ নামে এক ব্যাক্তি লেখছেন যারা প্রচন্ড শৈত্যপ্রবাহে বরফজমানো মাটির উপর দাঁড়িয়ে নামাজ আদায় করছে মহান রব্বুল আলামিন তাদের জন্য অবশ্যই পুরুস্কারের ব্যাবস্থা করে রাখছেন।

Related posts

Leave a Comment